দেশনিউজ

আরও কড়া লকডাউন বাধ্যতামূলক মাস্ক, অমান্য করলে ২ বছরের জেল সহ ১ লাখ টাকা জরিমানা

Advertisement

পায়েল গাঙ্গুলি: যত দিন যাচ্ছে ততোধিক বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। অদৃশ্য অজানা ভাইরাস করোনা আতঙ্কে ক্রমাগত ভয়ে কাঁপছে দেশ তথা রাজ্যবাসী। তবে সংক্রমণ রুখতে তৎপর প্রশাসন। ইতিমধ্যেই মাস্ক নিয়ে সর্তকতা জারি করেছে সরকার। আর এবার মাস্ক ও লকডাউন নিয়ে আরও করা ঝাড়খণ্ড সরকার। বিধি না মানলে করার শাস্তি দেবে সরকার। এমনকি হবে জরিমানাও।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা যে ভাবে দিনদিন বেড়ে চলেছে তাতে অত্যন্ত উদ্বিগ্ন প্রশাসন। কিন্তু প্রশাসন চেষ্টা করলেও অনেক সময় প্রশাসনের নিয়মকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে নিয়ম অমান্য করে রাস্তায় বেরিয়ে পড়ছে বহু মানুষ। তবে, তাদের শাস্তি দিতে এবার কঠোর সরকার। ঝাড়খণ্ড সরকারের তরফে নির্দেশিকা জারি করে বলা হয়েছে মাস্ক না-পরলে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হবে। শুধু তাই না লকডাউন না-মানলে ২ বছরের জন্য হতে পারে হাজতবাসও।

এই প্রসঙ্গে ঝাড়খণ্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বন্না গুপ্তা সাফ জানিয়েছেন, ‘যদি কারুর জরিমানা করা হয়, তার উপর চলা মামলায় তিনি দোষী প্রমাণিত হলে তবেই তাঁকে এক লাখ টাকা জরিমানা দিতে হবে। এমনটা নয় যে, স্পট চেকিং-এর সময় মাস্ক না-পরা অবস্থায় কেউ ধরা পড়লে তখনই তাঁকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হবে। এখনও অধ্যাদেশ পূর্ণরূপে বলবত্‍‌ শুরু হয়নি। তবে , সরকার সবরকমভাবে করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ চালাচ্ছে’।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

×
Close